বাংলাদেশের বৃহত্তম শিক্ষামূলক কমিউনিটিতে আপনাকে স্বাগতম!

হরতাল অনুচ্ছেদ রচনা

হরতাল দিবস হরফে সব দৈনন্দিন কাজের সামরিক কর্মচ্যুতি। এটি সাধারণত রাজনৈতিক ফল বা শ্রমিক সংঘ কতক ক্ষমতাসীন সরকার অথবা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে তাদের দাবি বাস্তবায়নের জন্য ডাকা হয়। এটা দুর্নীতি অথবা ক্ষমতাসীন দলের বেআইনী কার্যকলাপের বিরুদ্ধে ডাকা হয়। হরতাল দিবসে অফিস , বিদ্যালয়, মহাবিদ্যালয়, বিশ্ববিদ্যালয়, বাজার, আদালত, কল-কারখানা বন্ধ থাকে। যানবাহন রাস্তা দিয়ে চলতে পারে। । মাঝে মাঝে রিক্সা এবং এ্যম্বুলেন্স রাস্তা দিয়ে চলতে দেখা যায়। পিকেটাররা রাস্তার উপর আগুন জ্বালায় এবং যানবাহন চলাচল বন্ধ করতে চেষ্টা করে। তারা মিছিল বের করে। গুরুত্বপূর্ণ স্থানসমূহে অসংখ্য পুলিশ মােতায়েন করা হয়। মানুষকে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে পায়ে হেঁটে যেতে হয়। হরতালের অনেক অপকারিতা রয়েছে। হরতালের কারণে স্বাভাবিক জীবন অচল হয় পড়ে। এটি আমাদের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির উপর নৈতিবাচক প্রভাব সৃষ্টি করে। শিক্ষার্থীরা তাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যেতে পারে না। অসুস্থ লােকজন চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে যেতে পারে না। কল-কারখানা বন্ধ করে দিতে হয়। যা-হােক, হরতাল সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। ক্ষমতাসীন সরকার কর্তৃক বিরোধী দলগুলাের দাবির প্রতি অগ্রাধিকার দেয়া উচিত। বিরোধী দলগুলোর হরতাল পরিহার করে প্রতিবাদের শান্তিপূর্ণ পথ অবলম্বন করা উচিত।

Post a Comment

0 Comments Replies Comment